Try bdQuiz for Free!

আর্ন্তজাতিক বিষয়ক সাধারণ জ্ঞান
#3613
জাতিপুঞ্জ: প্রথম বিশ্বযুদ্ধের পর বিশ্বশান্তি প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে ১৯১৯ সালে স্বাক্ষরিত ভার্সাই চুক্তির মাধ্যমে ১৯২০ সালে জাতিপুঞ্জ প্রতিষ্ঠা লাভ করে। যুক্তরাষ্ট্রের ২৮ তম প্রেসিডেন্ট উড্রো উইলসন ছিলেন জাতিপুঞ্জ গঠনের প্রস্তাবক। জাতিপুঞ্জের সদর দপ্তর ছিল সুইজারল্যান্ডের জেনেভায়। জাতিসংঘের অঙ্গসংস্থা ছিল তিনটি-পরিষদ, কাউন্সিল ও সচিবালয়। জাতিপুঞ্জের সদস্য ছিল না যুক্তরাষ্ট্র। দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধ এড়াতে ব্যর্থ হওয়ায় ১৯৩৯ সাল থেকে জাতিপুঞ্জ তার কার্যকারিতা হারায়। তবে আনুষ্ঠানিকভাবে বিলুপ্ত হয় ১৯৪৬ সালের ২০ এপ্রিল।
জাতিসংঘ
লন্ডন ঘোষণা: ১৯৪১ সালে জার্মানি ব্রিটেনকে আক্রমণ করলে ইউরোপের ৯ টি দেশের প্রবাসী সরকার পৃথিবীতে শান্তি ও নিরাপত্তার লক্ষ্যে লন্ডনের জেমস প্রাসাদে যে ঘোষণা দেয়, তাই লন্ডন ঘোষণা। এটি জাতিসংঘ প্রতিষ্ঠার প্রথম সদস্য।
আটলান্টিক সনদ: ১৯৪১ সালে মার্কিন রাষ্ট্রপতি ফ্রাংকলিন ডি রুজভেল্ট এবং ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী উইনস্টন চার্টিল দ্বীপের কাছে উত্তর আটলান্টিক মহাসাগরের বুকে একটি যুদ্ধ জাহাজে পৃথিবীতে স্থায়ী শান্তি স্থাপনের উদ্দেশ্যে একটি আট দফা চুক্তিতে স্বাক্ষর করেন। এই চুক্তিটি আটলান্টিক সনদ নামে পরিচিত।
তেহরান সম্মেলন: ১৯৪৩ সালে রুজভেল্ট, চার্চিল এবং সোভিয়েত প্রেসিডেন্ট স্ট্যালিন তেহরানে মিলিত হন এবং বিশ্বের সব দেশকে এই আন্তর্জাতিক সংস্থার সদস্য হওয়ার আহ্বান জানান।
ইয়াল্টা সম্মেলন: ১৯৪৫ সালে ইউক্রেনের ইয়াল্টায় পাঁচটি স্থায়ী সদস্যের ভেটো প্রদানের ক্ষমতা দেওয়ার জন্য পুনরায় সম্মেলন হয়।
সানফ্রান্সিকো সম্মেলন: ১৯৪৫ সালের ২৬ জুন ৫০ টি দেশের প্রতিনিধিরা ১১১ ধারা সংবলিত জাতিসংঘ সনদ স্বাক্ষর করে। ১৯৪৫ সালের ১৫ অক্টোবর ৫১ তম দেশ হিসেবে পোল্যান্ড জাতিসংঘ সনদে স্বাক্ষর করে। ১৯৪৫ সালের ২৪ অক্টোবর এই সনদ কার্যকর হয় এবং জাতিসংঘ প্রতিষ্ঠিত হয়।
জাতিসংঘ পরিচিতি
ফ্রাংকলিন ডি রুজভেল্ট জাতিসংঘের নামকরণ করেন।
জাতিসংঘের প্রতিষ্ঠাকালীন সদস্য ৫১ টি।
সানফ্রান্সিকো সম্মেলনে উপস্থিত সদস্য ৫০ টি। পোল্যান্ড উপস্থিত ছিল না।
জাতিসংঘ সনদের মূল স্বাক্ষকারী দেশ ৫১ টি তবে সানফ্রান্সিসকো সম্মেলনে ৫০ টি দেশ স্বাক্ষর করে। পোল্যান্ড ১৫ অক্টোবর স্বাক্ষর করে। যেহেতু জাতিসংঘ সনদ কার্যকর হওয়ার আগেই পোল্যান্ড স্বাক্ষর করে তাই পোল্যান্ড জাতিসংঘের প্রতিষ্ঠাকালীন সদস্য।
জাতিসংঘ সনদের রচয়িতা হলেন আর্কিভাল্ড ম্যাকলিশ।
জাতিসংঘের সদরদপ্তর নিউইয়র্কে।
জাতিসংঘের সদরদপ্তরের স্পতি ডব্লিউ হ্যারিসন।
জাতিসংঘের সদরদপ্তর সুইজারল্যান্ডের জেনেভায়।
জাতিসংঘের মূল অঙ্গসংস্থা ৬টি – ১. সাধারণ পরিষদ ২.নিরাপত্তা পরিষদ ৩.অর্থনৈতিক পরিষদ ৪.আন্তর্জাতিক আদালত ৫.সচিবালয় ৬.অছি পরিষদ।
জাতিসংঘের ভাষা ৬টি। ১. ইংরেজি ২.ফরাসি ৩.চীনা ৪.রুশ ৫.স্প্যানিশ ৬.আরবি।
জাতিসংঘের কার্যকরী বা অফিসিয়াল ভাষা ২টি – ইংরেজি ও ফরাসি।
জাতিসংঘের সদস্য নয় তাইওয়ান, ভ্যাটিকান সিটি, কসোভো, ফিলিস্তিন।
ভ্যাটিকান সিটি ও ফিলিস্তিন জাতিসংঘের পর্যবেক্ষক দেশ।
জাতিসংঘের বর্তমান সদস্য ১৯৩টি। সর্বশেষ সদস্য দক্ষিণ সুদান।
জনসংখ্যায় জাতিসংঘের ছোট দেশ নাওরু ও আয়তনে মোনাকো।
ইন্দোনেশিয়া ১৯৬৫ সালে জাতিসংঘ থেকে স্বেচ্ছায় পদত্যাগ করে। একই বছর আবার ফিরে আসে।
জাকিসংঘ রেডিও বাংলা যাত্রা শুরু করে ২০১৩ সালে।
সাধারণ পরিষদ
সাধারণ পরিষদে একটি দেশে একটি ভোট দেওয়ার ক্ষমতা থাকে, তবে প্রতিনিধি পাঠাতে পারে পাঁচজন।
প্রতিবছর সেপ্টেম্বর মাসের তৃতীয় মঙ্গলবার সাধারণ পরিষদে বার্ষিক অধিবেশন শুরু হয়।
জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদে প্রথম অধিবেশন অনুষ্ঠিত হয়েছিল লন্ডনের ওয়েস্ট মিনিস্টার হলে।
সাধারণ পরিষদে সভাপতি নির্বাচিত হয় ১ বছরের জন্য।
১৯৫০-৫৩ সালে সংঘটিত কোরিয়া যুদ্ধের প্রেক্ষাপটে জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদে গৃহীত হয়।
সাধারণ পরিষদের সভাপতি নির্ধারিত হন সংখ্যাগরিষ্ঠ সদস্যের ভোটে।
সাধারণ পরিষদের ৭৩ তম তথা সর্বশেষ অধিবেশনে সভাপতি হন স্পেনের মারিয়া এসপিনোসা।
সাধারণ পরিষদের প্রথম মহিলা সভাপতি ভারতের বিজয় লক্ষী পন্ডিত।
সাধারণ পরিষদের প্রথম অধিবেশনে বসে ১৯৪৬ সালের ১০ জানুয়ারি।

    Vacancy 04 Job Responsibilities Computer fluen[…]

    bdQuiz খেলতে খেলতে নিজের প্রস্তুতি পরীক্ষা করুন